প্রোগ্রামিং ভাষা: জ্ঞান ও অনুধাবনমূলক প্রশ্ন

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযু্ক্তি

এইচএসসি পরীক্ষা-২০২৪

প্রোগ্রামিং ভাষা

জ্ঞান ও অনুধাবনমূলক প্রশ্ন ও উত্তর

০১. এনকোডার কী?

উত্তর: এনকোডার হলো এমন এক ধরনের সার্কিট যা আলাদা আলাদা লাইনের সিগন্যালকে এনকোড করে আউটপুট হিসেবে বাইনারি সংখ্যা প্রদান করে।

০২. ইউনিকোড “বাংলা” ভাষা বুঝতে পারে – ব্যাখ্যা কর।

উত্তর: ইউনিকোড বাংলা ভাষা বুঝতে পারে। ইউনিকোড হচ্ছে পৃথিবীর প্রায় সব ভাষার লেখালেখিকে একটি পদ্ধতিতে সমন্বিত করার কোড। ইউনিকোড কনসোর্টিয়াম নামে একটি সংগঠন রক্ষণাবেক্ষণ করে থাকে। ১৯৯১ সালে ২৪টি ভাষা নিয়ে উনিকোডের প্রথম সংস্করণ ১.০.০ প্রকাশিত হয় যেখানে বাংলা ভাষাও ছিলো। সর্বশেষ ইউনিকোডের স্ট্যার্ডাড অনুযায়ী যেখানে প্রত্যেকটা বর্ণের জন্য 000016 থেকে শুরু করে 10FFFF16   এর ভেতরে একটি সংখ্যা নির্দিষ্ট করে দেওয়া আছে। যেমন:  099516 হচ্ছে বাংলা অক্ষর ‘ক’। ইউনিকোড প্রতিটি ভাষার জন্য 65,536 টি স্থান সংরক্ষণ করা আছে।

০৩. চলক কী?

উত্তর: ‘সি’ ভাষার মেমোরিতে ডেটা সংরক্ষণ করতে যে নাম ব্যবহৃত হয় তাই চলক।

০৪. ইন্টারপ্রেটারের তুলনায় কম্পাইলার সুবিধাজনক- ব্যাখ্যা কর।

উত্তর: ইন্টারপ্রেটারের তুলনায় কম্পাইলার সুবিধাজনক। কারণ-

ক) কম্পাইলার প্রথমে পুরো প্রোগ্রামটি কম্পাইল করে মেশিন কোডে রূপান্তর করে। পক্ষান্তরে ইন্টারপ্রেটার পুরো প্রোগ্রাম পরীক্ষা না করে প্রোগ্রামের প্রতিটি স্টেটমেন্ট মেশিন কোডে রূপান্তর করে।

খ) কম্পাইলার করার পর প্রোগ্রামগুলো অনেক দ্রুত গতিতে কাজ করে। পক্ষান্তরে ইন্টারপ্রেটার একটি করে স্টেটমেন্ট মেশিন কোডে রূপান্তরিত হয় বলে সময় বেশি লাগে।

০৫. 4GL কী?

উত্তর: যে প্রোগ্রামিং ভাষাগুলো মানুষের ভাষার কিছুটা কাছাকাছি, সে ভাষাগুলোই হলো চতুর্থ প্রজন্মের ভাষা বা 4GL।

০৬. C – একটি কেস সেনসেটিভ ভাষা- ব্যাখ্যা কর।

উত্তর: ‘সি’ ভাষায় সাধারণত সব প্রোগ্রাম ছোট হাতের অক্ষরে লেখা হয়। অর্থাৎ সি প্রোগ্রামে ছোট হাতের অক্ষর ও বড় হাতের অক্ষরের মধ্যে পার্থক্য পরিলক্ষিত হয়। এ ভাষায় প্রোগ্রাম সব সময় ছোট হাতের অক্ষরে লিখতে হয়। এজন্য C প্রোগ্রামকে কেস সেনসেটিভ ভাষা বলা হয়।

০৭.  সংরক্ষিত শব্দ কী?

উত্তর: প্রত্যেক প্রোগ্রামিং ভাষার কতগুলো শব্দ আছে যা ঐ প্রোগ্রামিং এ কাজ করার সময় ব্যবহার করা হয়। এই সকল নির্ধারিত শব্দগুলোকে সংরক্ষিত শব্দ বলা হয়।

০৮. math.h  ফাইলটি ব্যাখ্যা কর।

উত্তর: math.h   একটি লাইব্রেরি হেডার ফাইল। এটি একটি নির্দিষ্ট নামে লাইব্রেরিতে জমা থাকে এবং প্রয়োজনে সেই ফাংশন এর জন্য নির্ধারিত কাজগুলো করা যায়। এ ফাংশনগুলো প্রোগ্রামে একাধিক বার ইচ্চেমতো ব্যবহার করা যায়। math.h   হেডার ফাইলের ফাংশনগুলো হলো sqrt(), pow(), sin(), cos(), tan()।

০৯. অবজেক্ট প্রোগ্রাম কী?

উত্তর: মেশিন ভাষায় লেখা প্রোগ্রামকে বলা হয় অবজেক্ট প্রোগ্রাম বা বস্তু প্রোগ্রাম।

১০. আ্যারো কী?

উত্তর: সি প্রোগ্রামিং ভাষায় অ্যারো হলো একটি বিশেষ ডেটা স্ট্রাকচার যাতে একই ধরনের একাধিক ডেটা রাখা যায়।

১১. প্রোগ্রাম কী?

উত্তর: প্রোগ্রাম হলো কোনো সমস্যা সমাধানের জন্য কম্পিউটারের ভাষায় ধারাবাহিকভাবে কতকগুলো কমান্ড বা নির্দেশের সমষ্টি।

১২. scanf(“%”d,%x”,&a,&b); স্টেটমেন্টটি ব্যাখ্যা কর।

উত্তর: scanf(“%”d,%x”,&a,&b); এখানে, scanf() ফাংশনটি প্রোগ্রাম নির্বাহের সময় কী-বোর্ড থেকে মান নিয়ে ভেরিয়েবলে রাখে। %d  হলো integer ডেটা টাইপের  format specifications।  %x  ব্যবহৃত হয় হেক্সাডেসিমেল ডেটা ইনপুট বা আউটপুটের জন্য আর  &a হলো  address of a যা নির্দেশ করে integer টাইপের  a ভেরিয়েবলের মেমোরি লোকেশন যেখানে ডেটা সংরক্ষিত হবে।  &b হলো address of b যা নির্দেশ করে Hexadecimal টাইপের b ভেরিয়েবলের মেমোরি লোকেশন যেখানে ডেটা সংরক্ষিত হবে।

১৩. কম্পাইলার কী?

উত্তর: কম্পাইলার হলো একটি অনুবাদক প্রোগ্রাম যা পুরো প্রোগ্রাম একসাথে পরীক্ষা করে সিনট্যাক্সগুলো মেশিন কোডে রূপান্তর করে।

১৪. k++ ও  ++k ব্যাখ্যা কর।

উত্তর:  k++ ও  ++k হলো ইনক্রিমেন্টাল অপারেটর। k++ এর ক্ষেত্রে কম্পাইলার প্রথমে প্রোগ্রামে k এর পুরাতন মান ব্যবহার করে অতঃপর ভেরিয়েবলের মানের সাথে যথাক্রমে ১ যোগ করে। এই নতুন মান পরবর্তী স্টেটমেন্ট ধাপ থেকে কার্যকর হয়। কিন্তু ++ k এর ক্ষেত্রে কম্পাইলার প্রথমে k এর প্রারম্ভিক মানের সাথে যথাক্রমে এক যোগ করে অতঃপর প্রোগ্রামের একই স্টেটমেন্ট এই বর্ধিত মান ব্যবহার করে।

১৫.  Integer এর পরিবর্তে কখন long integer ব্যবহার করতে হয়- বুঝিয়ে লেখ।

উত্তর: 16 bit বা 2 byte এর উপরে যে কোন পূর্ণ  সংখ্যার ক্ষেত্রে integer এর পরিবর্তে long integer ব্যবহার করতে হয়।  integer শুধু 2 byte বা 16 bit এর মধ্যে যে কোন পূর্ণ সংখ্যার ক্ষেত্রে ব্যবহার করা যায়। উদাহরন সি প্রোগ্রামে পূর্ণ সংখ্যা ineger এর ক্ষেত্রে ভেরিয়েবল রেঞ্জ হচ্ছে -32768……>32767 এই রেঞ্জের উপরে গেলে long integer ব্যবহার করতে হয়।

১৬. চলক তৈরির ক্ষেত্রে কিছু বিধিবদ্ধ নিয়ম কানুন রয়েছে- ব্যাখ্যা কর।

উত্তর: চলক বা ভেরিয়েবল তৈরির ক্ষেত্রে কিছু বিধিব্দ্ধ নিয়ম কানুন রয়েছে। নিচে তা ব্যাখ্যা করা হলো

ক) চলকের নামের প্রথম অক্ষরটি কোন অঙ্ক হতে পারবে না।

খ) চলকের মধ্যে স্পেশাল ক্যারেক্টার আন্ডারস্কোর চিহ্ন ব্যবহার করা যায়। আন্ডারস্কোর ব্যতীত অন্য কোন স্পেশান ক্যারেক্টার ব্যবহার করা যায় না।

গ) একই ফাংশনে একই নামের দুই বা ততোধিক চলক ঘোষণা করা যায়।

ঘ) চলক নামের মধ্যে কোনো ফাঁকা স্থান থাকবে না।

221 Views
Leave A Reply

Your email address will not be published.